দাক্ষিণাত্য মালভূমির অবস্থান ও ভূপ্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য সংক্ষেপে আলোচনা করো

ভারতের দক্ষিণাংশে অবস্থিত বিশাল মালভূমি হল দাক্ষিণাত্য মালভূমি। এই মালভূমি তার ঐতিহাসিক, সাংস্কৃতিক ও ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্যের জন্য বিখ্যাত। দশম শ্রেণীর মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষার জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

দাক্ষিণাত্য মালভূমির অবস্থান ও ভূপ্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য সংক্ষেপে আলোচনা করো

দাক্ষিণাত্য মালভূমির অবস্থান –

উপদ্বীপীয় মালভূমি’র মূল ভূখণ্ডটির নাম দাক্ষিণাত্য মালভূমি। উত্তরে বিন্ধ্য পর্বত, দক্ষিণে কন্যাকুমারী, পূর্বে পূর্বঘাট পর্বতমালা বা মলয়াদ্রি এবং পশ্চিমে পশ্চিমঘাট পর্বতমালা বা সহ্যাদ্রি-র মধ্যবর্তী অংশে দাক্ষিণাত্য মালভূমি বিস্তৃত। মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, কেরালা ও তামিলনাড়ু রাজ্যের মালভূমি এই অঞ্চলের অন্তর্গত।

দাক্ষিণাত্য মালভূমির ভূপ্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য –

  • এই অঞ্চলটি পৃথিবীর প্রাচীনতম ভূভাগ বা শিল্ড (shield) মালভূমির অংশ।
  • অঞ্চলটি প্রাচীন গ্রানাইট, নিস প্রভৃতি আগ্নেয় ও রূপান্তরিত শিলা দ্বারা গঠিত।
  • কোটি কোটি বছর ধরে ক্ষয় হওয়ার ফলে দাক্ষিণাত্য মালভূমির অনেক অংশ সমপ্রায়ভূমি এবং ব্যবচ্ছিন্ন মেসা (mesa) ও বিউট (butte) ভূভাগে পরিণত হয়েছে।
  • সমগ্ৰ মালভূমি পশ্চিম থেকে পূর্বে ঢালু এবং উত্তরাংশের তুলনায় দক্ষিণাংশ ক্রমশ উঁচু।
  • মালভূমির উত্তর-পশ্চিমাংশে লাভা গঠিত ডেকান ট্র্যাপ (deccan trap) অঞ্চল দেখা যায়। ‘ট্র্যাপ’ (trap) শব্দটির অর্থ ‘সিঁড়ি’। মহারাষ্ট্র মালভূমি নামে পরিচিত এই মালভূমির শীর্ষদেশ চ্যাপটা, ঢাল যথেষ্ট খাড়াই এবং দুই পার্শ্বভাগ ধাপ সমন্বিত।
  • ডেকান ট্র্যাপের দক্ষিণে কর্ণাটক মালভূমি অংশে যে অনুচ্চ প্রায় সমতল শীর্ষভাগযুক্ত অঞ্চল দেখা যায় তা ময়দান এবং ময়দানের দক্ষিণে যথেষ্ট উঁচু ও পাহাড় সমন্বিত যে অঞ্চল দেখা যায় তা মালনাদ নামে পরিচিত।
  • ত্রিভুজাকৃতি এই মালভূমি তিনদিকে পর্বতবেষ্টিত। এগুলির মধ্যে উত্তরে আছে সাতপুরা-মহাদেব-মহাকাল-অজন্তা পর্বতশ্রেণি, পশ্চিমে আছে পশ্চিমঘাট বা সহ্যাদ্রি পর্বতমালা এবং পূর্বে আছে পূর্বঘাট বা মলয়াদ্রি পর্বতমালা।
  • পশ্চিমঘাট পর্বতমালার দক্ষিণ প্রান্তে আনাইমালাই পর্বত অবস্থিত। এই পর্বতের আনাইমুদি (2695 মি) দাক্ষিণাত্য মালভূমির উচ্চতম শৃঙ্গ ৷
দক্ষিণাত্যের মালভূমির অবস্থান ও ভূতাত্ত্বিক গঠন

দাক্ষিণাত্য মালভূমি তার অনন্য ভূপ্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্যের জন্য ভারতের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল। এই অঞ্চলের পর্বতমালা, নদী, মালভূমি ও প্লেটোগুলি ভারতের ভূগোল ও অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দশম শ্রেণীর মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষার জন্য দাক্ষিণাত্য মালভূমির অবস্থান ও ভূপ্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

4/5 - (1 vote)


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন