গঙ্গা উন্নয়ন প্রকল্পের পরিবেশগত গুরুত্ব কী?

আজকে আমরা আমাদের আর্টিকেলে দেখবো যে গঙ্গা উন্নয়ন প্রকল্পের পরিবেশগত গুরুত্ব কী? এই প্রশ্ন দশম শ্রেণীর পরীক্ষার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ, গঙ্গা উন্নয়ন প্রকল্পের পরিবেশগত গুরুত্ব কী? – এই প্রশ্নটি মাধ্যমিক ভূগোলের চতুর্থ অধ্যায় বজ্র ব্যাবস্থাপনার প্রশ্ন। আপনি পরীক্ষার জন্য তৈরী করে গেলে আপনি লিখে আস্তে পারবেন।

পরিবেশ দূষণ, বিশেষ করে নদীগুলোর জল দূষণ, দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। শিল্পায়নের প্রসার, খোলা মলত্যাগ এবং আরও অনেক সমস্যার কারণে এই দূষণের মাত্রা বেড়ে চলেছে। গঙ্গা নদীর বর্তমান বেহাল দশা এই সমস্যার স্পষ্ট প্রমাণ।

এই সমস্যা সমাধানের জন্য ১৯৮৫ সালে গঙ্গা অ্যাকশন প্ল্যান (GAP) চালু করা হয়।

গঙ্গা নদী পরিষ্কার করার ধারণাটি ১৯৭৯ সালে ভারত সরকারের মাথায় আসে। কিন্তু, কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (CPCB) কর্তৃক গঙ্গা নদীর একটি বিস্তৃত সমীক্ষা করার পর ১৯৮৫ সালে GAP বাস্তবায়ন শুরু হয়।

গঙ্গা নদী ভারতের জীবনধারার সাথে জড়িত একটি পবিত্র নদী। কিন্তু দূষণের ফলে নদীর স্বাস্থ্য ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। এই সমস্যা মোকাবেলায় ১৯৮৬ সালে GAP শুরু হয়। এটি একটি কেন্দ্রীয় সরকারি উদ্যোগ, যার মাধ্যমে জাতীয় নদী গঙ্গা অববাহিকা কর্তৃপক্ষ গঠিত হয় এবং গঙ্গাকে জাতীয় নদী ঘোষণা করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর নেতৃত্বে এই কর্মসূচি পরিচালিত হয়। প্রাথমিকভাবে উত্তরপ্রদেশ, বিহার ও পশ্চিমবঙ্গ এই তিনটি রাজ্যকে নিয়ে ১৯৮৫ সালে প্রথম পর্যায়টি শুরু হয়। পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালে দ্বিতীয় পর্যায়ে উত্তরাখণ্ড, ঝাড়খণ্ড, দিল্লি ও হরিয়ানাকেও এর আওতায় আনা হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে গঙ্গার প্রধান উপনদী যমুনা, মহানন্দা, গোমতী ও দামোদরের জন্যও পৃথক পৃথক কর্মসূচি তৈরি করা হয়। জাতীয় নদী সংরক্ষণ পরিকল্পনাও এই সময়েই শুরু হয়।

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় (MoEF) GAP-এর সার্বিক নকশা ও বাস্তবায়নের দায়িত্বে রয়েছে। কেন্দ্রীয় গঙ্গা কর্তৃপক্ষ (CGA)-এর নেতৃত্বে রয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

যদিও গঙ্গা নদীর স্বাস্থ্য রক্ষায় এই উদ্যোগ গুরুত্বপূর্ণ, তবে এর কার্যকারিতা নিয়ে বেশ কিছু বিতর্ক রয়েছে।

গঙ্গা উন্নয়ন প্রকল্পের পরিবেশগত গুরুত্ব কী?

দেশের প্রায় 40 শতাংশ মানুষ গঙ্গানদীর অববাহিকায় বাস করেন। ভারতের মোট জলসম্পদের প্রায় 32 শতাংশ গঙ্গা এবং তার উপনদী থেকে পাওয়া যায়। কৃষিক্ষেত্রে জলসেচ, পানীয় জলের সরবরাহ, শিল্পের দরকারে জলের জোগান দেওয়া, জল পরিবহণের ব্যবস্থা করা—ভাগীরথী-হুগলির জলের বাস্তুতান্ত্রিক ভারসাম্য রক্ষা এসবের জন্য গঙ্গা উন্নয়ন পরিকল্পনা নেওয়া উচিত। গঙ্গা উন্নয়ন পরিকল্পনা থেকে গঙ্গানদী এবং তার অববাহিকার মানোন্নয়ন ঘটানো যাবে।

আরও পড়ুন – ভাগীরথী-হুগলি নদীকে কেন আমরা দূষণমুক্ত করব?

গঙ্গা নদী আমাদের দেশের একটি অমূল্য সম্পদ। পরিবেশগত, অর্থনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক দিক থেকে এর গুরুত্ব অপরিসীম। গঙ্গা উন্নয়ন প্রকল্প গঙ্গা নদীর পরিবেশ রক্ষা এবং এর পবিত্রতা বজায় রাখার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এই প্রকল্পের মাধ্যমে নদীর জল দূষণ কমানো, জীববৈচিত্র্য রক্ষা করা এবং নদীর তীরবর্তী এলাকার পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখা সম্ভব হবে।

গঙ্গা উন্নয়ন প্রকল্প একটি দীর্ঘমেয়াদী প্রকল্প। এই প্রকল্পের সফল বাস্তবায়নের জন্য সরকার, জনগণ এবং সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। আমাদের সকলের উচিত এই প্রকল্পে সহায়তা করা এবং গঙ্গা নদীর পরিবেশ রক্ষায় ভূমিকা রাখা।

Rate this post


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন