মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি এবং কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – বংশগতি – অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর

জীবের এক প্রজন্ম থেকে অন্য প্রজন্মে বৈশিষ্ট্যগুলির হস্তান্তরকে বংশগতি বলে। বংশগতির মাধ্যমে জীবের শারীরিক ও আচরণগত বৈশিষ্ট্যগুলি পরবর্তী প্রজন্মে সঞ্চারিত হয়।

Table of Contents

মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি এবং কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ 11

জেনেটিক্‌স কাকে বলে?

জীববিজ্ঞানের যে শাখায় জিন ও বংশগতি-সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা করা হয়, তাকে জেনেটিক্‌স বা বংশগতিবিদ্যা বলে।

বংশগতির ধারক ও বাহক কী?

বংশগতির ধারক ও বাহক হল জিন।

জিন কোথায় অবস্থিত?

জিন ক্রোমোজোমে অবস্থিত।

লোকাস কাকে বলে?

ক্রোমোজোমের যে নির্দিষ্ট স্থানে জিন অবস্থিত, তাকে লোকাস বলে।

মেন্ডেল কী কারণে বিখ্যাত?

মেন্ডেল হলেন জেনেটিক্‌স-এর জনক। তিনি পৃথকীভবনের সূত্র এবং স্বাধীন বিন্যাস সূত্র আবিষ্কার করেন।

মেন্ডেলবাদ বা মেন্ডেলিজম কী?

মেন্ডেল আবিষ্কৃত বংশগতি-সংক্রান্ত মৌলিক সমন্বিত তত্ত্বকে মেন্ডেলবাদ বা মেন্ডেলিজম বলে।

মটর গাছের বিজ্ঞানসম্মত নাম লেখো।

মটর গাছের বিজ্ঞানসম্মত নাম হল পাইসাম স্যাটিভাম (Pisum sativum)।

জিন কথাটি সর্বপ্রথম কে, কত সালে ব্যবহার করেন?

জিন কথাটি সর্বপ্রথম ব্যবহার করেন বিজ্ঞানী জোহানসেন, 1909 সালে।

কোনো জীবের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের বাহ্যিক প্রকাশকে কী বলে?

কোনো জীবের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের বাহ্যিক প্রকাশকে ফিনোটাইপ বলে।

একসংকর জননে F2জনুতে ফিনোটাইপের অনুপাত কত?

একসংকর জননে F2 জনুতে ফিনোটাইপের অনুপাত হল প্রকট : প্রচ্ছন্ন = 3:1।

একসংকর জননে F2 জনুতে জিনোটাইপের অনুপাত কত?

একসংকর জননে F2 জনুতে জিনোটাইপের অনুপাত হল বিশুদ্ধ প্রকট : সংকর প্রকট : বিশুদ্ধ প্রচ্ছন্ন = 1 : 2 : 1।

জীবদেহের প্রধান জেনেটিক পদার্থ কী?

জীবদেহের প্রধান জেনেটিক পদার্থ হল DNA বা ডিঅক্সিরাইবোনিউক্লিক অ্যাসিড।

গিনিপিগের বংশগতিতে একটি প্রকট বৈশিষ্ট্যের উদাহরণ দাও।

বংশগতিতে গিনিপিগের লোমের কালো রং-এর বৈশিষ্ট্যটি হল একটি প্রকট গুণ।

কোনো একসংকর জনন পরীক্ষায় ফিনোটাইপিক অনুপাত 3 : 1-এর স্থানে 1 : 2 :1 পাওয়া গেলে তা কোন্ ঘটনাকে নির্দেশ করে?

একসংকর জনন পরীক্ষায় ফিনোটাইপিক অনুপাত 3 : 1 -এর স্থানে 1 : 2 : 1 পাওয়া গেলে তা অসম্পূর্ণ প্রকটতাকে নির্দেশ করে।

দুটি সংকর লম্বা মটর উদ্ভিদের মধ্যে সংকরায়ণ ঘটালে প্রথম অপত্য জনুতে শতকরা কত ভাগ সংকর লম্বা মটর উদ্ভিদ পাওয়া যায়?

দুটি সংকর লম্বা উদ্ভিদের মধ্যে সংকরায়ণ ঘটলে, প্রথম অপত্য জনুতে 50% সংকর লম্বা মটর উদ্ভিদ পাওয়া যায়।

একটি শুক্রাণু 22A+ Y হলে নিষেকের পরে ভ্রূণের লিঙ্গ কী হবে?

একটি শুক্রাণু 22A+ Y হলে, নিষেকের পরে ভ্রূণ পুরুষ লিঙ্গের হবে।

কন্যাসন্তান সৃষ্টির জন্য পিতার শুক্রাণুতে কোন্ প্রকৃতির সেক্স ক্রোমোজোম থাকা উচিত?

কন্যাসন্তান সৃষ্টির জন্য পিতার শুক্রাণুতে সেক্স ক্রোমোজোম হিসেবে X ক্রোমোজোম থাকা উচিত।

X ক্রোমোজোম (যৌন ক্রোমোজোম)-বাহিত মানুষের কয়েকটি রোগ উল্লেখ করো।

X ক্রোমোজোম বাহিত মানুষের কয়েকটি রোগ হল বর্ণান্ধতা, হিমোফিলিয়া।

মেন্ডেলের পরীক্ষায় Tt বলতে কী ধরনের মটর গাছকে বোঝায়?

মেন্ডেলের পরীক্ষায় Tt বলতে সংকর লম্বা মটর গাছের জিনোটাইপকে বোঝায়।

মেডেলের পরীক্ষায় TT বলতে কী ধরনের মটর গাছকে বোঝায়?

মেন্ডেলের পরীক্ষায় TT বলতে বিশুদ্ধ লম্বা মটর গাছের জিনোটাইপকে বোঝায়।

মেন্ডেলের পরীক্ষায় tt বলতে কী ধরনের মটর গাছকে বোঝায়?

মেন্ডেলের পরীক্ষায় tt বলতে বিশুদ্ধ বেঁটে মটর গাছের জিনোটাইপকে বোঝায়।

জিন কী?

জিন হল বংশগতির ধারক ও বাহক।

হোলানড্রিক জিন কাকে বলে?

যে সকল জিন কেবল Y ক্রোমোজোমে অবস্থিত তাদের হোলানড্রিক জিন বলে।

Y ক্রোমোজোম বাহিত একটি বৈশিষ্ট্য লেখো।

Y ক্রোমোজোম বাহিত একটি বৈশিষ্ট্য হল পুরুষের কানের লতিতে চুল।

গিনিপিগের একটি চরিত্র ও তাদের বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো।

গিনিপিগের একটি চরিত্র হল লোমের বর্ণ ও তাদের বৈশিষ্ট্য হল কালো ও সাদা।

কোনো হোমোলোগাস ক্রোমোজোমের একটি লোকাসে অবস্থিত জিনের রূপভেদগুলিকে কী বলে?

কোনো হোমোলোগাস ক্রোমোজোমের একটি লোকাসে অবস্থিত জিনের রূপভেদগুলিকে অ্যালিল বলে।

মটর গাছের ফুলের রঙের প্রকট বৈশিষ্ট্য কোনটি?

মটর গাছের ফুলের রঙের সাপেক্ষে প্রকট বৈশিষ্ট্য হল বেগুনি রং।

লিঙ্গ নির্ধারণ পদ্ধতি কাকে বলে?

যে প্রক্রিয়ার দ্বারা স্তূণের যৌনতা নির্ধারিত হয়, তাকে লিঙ্গ নির্ধারণ পদ্ধতি বলে।

যে পদ্ধতিতে জনিতার বৈশিষ্ট্য অপত্যের মধ্যে সঞ্চারিত হয়, তাকে কী বলে?

যে পদ্ধতিতে জনিতার বৈশিষ্ট্য অপত্যের মধ্যে সঞ্চারিত হয়, তাকে বংশগতি বলে।

মেন্ডেলের একসংকর জননের পরীক্ষায় প্রথম অপত্য জনু (F1জনু)-তে যে বৈশিষ্ট্য প্রকাশিত হয়, তাকে কী বলে?

মেন্ডেলের একসংকর জননের পরীক্ষায় F1 জনুতে যে বৈশিষ্ট্য প্রকাশিত হয়, তাকে প্রকট বৈশিষ্ট্য বলে।

মেন্ডেলের একসংকর জননের পরীক্ষায় F1 জনুতে যে বৈশিষ্ট্য প্রকাশিত হয় না, তাকে কী বলে?

মেন্ডেলের একসংকর জননের পরীক্ষায় F1 জনুতে যে বৈশিষ্ট্য প্রকাশিত হয় না, তাকে প্রচ্ছন্ন বৈশিষ্ট্য বলে।

দুটি বিপরীত বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে সংকরায়ণ পদ্ধতিকে কী বলা হয়?

দুটি বিপরীত বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে সংকরায়ণ পদ্ধতিকে একসংকর জনন বলে।

পিতামাতার জিন অপত্যে যদি সমপ্রকৃতির হয়, তাকে কী বলা হয়?

পিতামাতার জিন অপত্যে যদি সমপ্রকৃতির হয়, তাকে হোমোজাইগাস বলা হয়।

পিতামাতার জিন অপত্যে যদি অসমপ্রকৃতির হয়, তাকে কী বলা হয়?

পিতামাতার জিন অপত্যে যদি অসমপ্রকৃতির হয়, তাকে হেটেরোজাইগাস বলে।

সংকরায়ণ পরীক্ষায় অপত্য জনুর বাহ্যিক লক্ষণের অনুপাতকে কী বলে?

সংকরায়ণ পরীক্ষায় অপত্য জনুর বাহ্যিক লক্ষণের অনুপাতকে ফিনোটাইপিক অনুপাত বলে।

সংকরায়ণ পরীক্ষায় অপত্য জনুর জিনগত লক্ষণের অনুপাতকে কী বলে?

সংকরায়ণ পরীক্ষায় অপত্য জনুর জিনগত লক্ষণের অনুপাতকে জিনোটাইপিক অনুপাত বলে।

মেন্ডেলের কাজ কোন্ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়?

মেন্ডেলের কাজ ব্রান-এর ন্যাচারাল হিস্ট্রি সোসাইটি-র পত্রিকায় প্রকাশ পায়।

বংশগতিতে 1 : 2 : 1-কে কী অনুপাত বলে?

বংশগতিতে 1 : 2 : 1 – কে একসংকর জননের F2 জনুর জিনোটাইপিক অনুপাত বলে।

বংশগতিতে 9 : 3 : 3 : 1 -কে কী অনুপাত বলে?

বংশগতিতে 9 : 3 : 3 : 1-কে দ্বিসংকর জননের জনুর ফিনোটাইপিক অনুপাত বলে।

মেন্ডেলের একসংকর জননের পরীক্ষা থেকে পাওয়া সূত্রটি কী?

মেন্ডেলের একসংকর জননের পরীক্ষা থেকে পাওয়া সূত্রটি হল—পৃথকীভবন সূত্র।

মেন্ডেলের দ্বিসংকর জননের পরীক্ষা থেকে পাওয়া সূত্রটি কী?

মেন্ডেলের দ্বিসংকর জননের পরীক্ষা থেকে পাওয়া সূত্রটি হল — স্বাধীন বিন্যাস সূত্র বা মুক্ত সঞ্চালন সূত্র।

বংশগতিতে 3 : 1-কে কী অনুপাত বলে?

বংশগতিতে 3 :1-কে একসংকর জননের F2 জনুর ফিনোটাইপিক অনুপাত বলে।

সংকরায়ণের সময়ে নির্বাচিত বিশুদ্ধ চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন জীব দুটিকে কী বলে?

সংকরায়ণের সময়ে নির্বাচিত বিশুদ্ধ চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন জীব দুটিকে জনিতৃ জনু বলে।

চেকার বোর্ড কে আবিষ্কার করেন?

চেকার বোর্ড আবিষ্কার করেন ব্রিটিশ বংশগতিবিদ রেজিনাল্ড ক্রামডাল পানেট (Reginald Crumdall Punnett)|

মেন্ডেল বর্ণিত বংশগত বৈশিষ্ট্যের জন্য দায়ী ফ্যাক্টর (factor) প্রকৃতপক্ষে কী?

মেন্ডেল, বংশগত বৈশিষ্ট্যের জন্য দায়ী উপাদান বা ফ্যাক্টর বলে যা বর্ণনা করেন তা প্রকৃতপক্ষে নির্দিষ্ট জিনের অ্যালিল।

মানুষের দেহকোশে কী কী প্রকারের যৌন ক্রোমোজোম দেখা যায়?

মানুষের দেহকোশে X ও Y নামক দুই প্রকারের যৌন ক্রোমোজোম দেখা যায়।

মানুষের দেহকোশে অটোজোমের সংখ্যা কত?

মানুষের দেহকোশে অটোজোমের সংখ্যা 44টি।

বংশগতি হলো একটি জটিল প্রক্রিয়া। এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পিতামাতার বৈশিষ্ট্য সন্তানদের মধ্যে প্রবাহিত হয়। বংশগতি সম্পর্কে জানার মাধ্যমে আমরা জিনগত রোগের কারণ এবং চিকিৎসা সম্পর্কে জানতে পারি।

Rate this post


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন