ভারতের একটি গ্রস্ত উপত্যকা মধ্যবর্তী প্রবাহিত নদীর নাম লেখো। এই নদীর গতিপথ বর্ণনা করো।

ভূগোলের দশম শ্রেণীর পরীক্ষার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন হল “ভারতের একটি গ্রস্ত উপত্যকা মধ্যবর্তী প্রবাহিত নদীর নাম লেখো। এই নদীর গতিপথ বর্ণনা করো”। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা এই প্রশ্নের উত্তর দেবো এবং মাধ্যমিক ভূগোলের পঞ্চম অধ্যায় “ভারতের প্রাকৃতিক পরিবেশ” এর “ভারতের জলসম্পদ” বিভাগ সম্পর্কে ধারণা স্পষ্ট করবো।

ভারতের একটি গ্রস্ত উপত্যকা মধ্যবর্তী প্রবাহিত নদীর নাম লেখো। এই নদীর গতিপথ বর্ণনা করো।

ভারতের একটি গ্রস্ত উপত্যকা মধ্যবর্তী প্রবাহিত নদীর নাম লেখো। এই নদীর গতিপথ বর্ণনা করো।

গ্রস্ত উপত্যকা দিয়ে প্রবাহিত নদী – 

ভারতের নর্মদা নদী উত্তরে বিন্ধ্য পর্বত ও দক্ষিণে সাতপুরা পর্বতের মধ্যবর্তী একটি গ্রন্ত উপত্যকার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

এই নদীর গতিথ – 

মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের 1057 মিটার উঁচু অমরকন্টক মালভূমি থেকে উৎপন্ন হয়ে নর্মদা নদী পশ্চিমে ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র ও গুজরাত রাজ্যের মধ্য দিয়ে 1300 কিমি পথ অতিক্রম করে খাম্বাত উপসাগরে পড়েছে। নর্মদা নদীর প্রথম 300 কিমি গতিপথে কপিলধারা ও ধুঁয়াধার নামে দুটি বিখ্যাত জলপ্রপাত দেখা যায়। গুজরাতের ভারুচ জেলায় এসে নর্মদা নদী সমতল অঞ্চলে প্রবেশ করেছে। এরপর খাম্বাত উপসাগরে মেশার আগে প্রায় 20 কিমি চওড়া একটি প্রশস্ত খাড়ি নর্মদা নদীতে গঠিত হয়েছে।

নর্মদা নদী ভারতের জন্য একটি অমূল্য সম্পদ। এই নদী কেবল জলসম্পদই সরবরাহ করে না, বরং অর্থনীতি, পরিবেশ এবং পর্যটনের ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দশম শ্রেণীর পরীক্ষার জন্য, নর্মদা নদীর বিষয়ে জ্ঞান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

Rate this post


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন