নবম শ্রেণী – ইতিহাস – উনবিংশ শতকের ইউরোপ – রাজতান্ত্রিক ও জাতীয়তাবাদী ভাবধারার সংঘাত – অতি সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্ন

ঊনবিংশ শতাব্দী ইউরোপের ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ যুগ। এই শতাব্দীতে ইউরোপে একাধিক রাজনৈতিক ও সামাজিক পরিবর্তন ঘটে। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন হল রাজতান্ত্রিক ও জাতীয়তাবাদী ভাবধারার বিকাশ। এই দুটি ভাবধারা পরস্পর বিরোধী ছিল। রাজতান্ত্রিক ভাবধারা ছিল কেন্দ্রীয় শক্তির ধারণা। জাতীয়তাবাদী ভাবধারা ছিল জাতিগত স্বাধীনতার ধারণা। এই দুটি ভাবধারার সংঘাত ইউরোপের ইতিহাসকে প্রভাবিত করে।

Table of Contents

 উনবিংশ শতকের ইউরোপ রাজতান্ত্রিক ও জাতীয়তাবাদী ভাবধারার সংঘাত

কোন্ সময়ে ইউরোপে জাতি-রাষ্ট্রের উদ্ভব হয়েছিল?

পঞ্চদশ ও ষোড়শ শতকে ইউরোপে জাতি-রাষ্ট্রের উদ্ভব হয়েছিল।

প্রথম কোথায় জাতি-রাষ্ট্র গঠিত হয়?

প্রথম স্পেনে জাতি-রাষ্ট্র গঠিত হয়।

ভিয়েনা কোন্ দেশে অবস্থিত?

ভিয়েনা অস্ট্রিয়াতে অবস্থিত।

নেপোলিয়নের পতনের পর কত খ্রিস্টাব্দে ভিয়েনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়?

নেপোলিয়নের পতনের পর ১৮১৪-১৫ খ্রিস্টাব্দে ভিয়েনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্বের ইতিহাসে প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মেলন কোন্ সম্মেলনকে বলা হয়?

বিশ্বের ইতিহাসে ভিয়েনা সম্মেলনকে (১৮১৪-১৫ খ্রি.)প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মেলন বলা হয়।

ভিয়েনা সম্মেলনের সভাপতি কে ছিলেন?

ভিয়েনা সম্মেলনের সভাপতি ছিলেন মেটারনিখ।

ভিয়েনা সম্মেলনের প্রকৃত নিয়ন্ত্রক কে ছিলেন?

ভিয়েনা সম্মেলনের প্রকৃত নিয়ন্ত্রক ছিলেন মেটারনিখ।

ভিয়েনা সম্মেলনে রাশিয়ার প্রতিনিধি কে ছিলেন?

ভিয়েনা সম্মেলনে রাশিয়ার প্রতিনিধি ছিলেন জার প্রথম আলেকজান্ডার৷

ভিয়েনা সম্মেলনে ইংল্যান্ডের প্রথম প্রতিনিধি কে ছিলেন?

ভিয়েনা সম্মেলনে ইংল্যান্ডের প্রথম প্রতিনিধি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাসালরি।

ভিয়েনা সম্মেলনে পরাজিত ফ্রান্সের প্রতিনিধি কে ছিলেন?

ভিয়েনা সম্মেলনে পরাজিত ফ্রান্সের প্রতিনিধি ছিলেন তালেরাঁ।

ভিয়েনা সম্মেলনের ন্যায্য অধিকার নীতি অনুসারে ফ্রান্সের সিংহাসনে কোন্ বংশের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল?

ভিয়েনা সম্মেলনের ন্যায্য অধিকার নীতি অনুসারে ফ্রান্সের সিংহাসনে বুরবোঁ বংশের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

ভিয়েনা সম্মেলনের ন্যায্য অধিকার নীতি অনুসারে ফ্রান্সের সম্রাট কে হয়েছিলেন?

ভিয়েনা সম্মেলনের ন্যায্য অধিকার নীতি অনুসারে ফ্রান্সের সম্রাট হয়েছিলেন অষ্টাদশ লুই।

ভিয়েনা সম্মেলনের পর (১৮১৫ খ্রি.) বেলজিয়ামকে কোন্ দেশের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছিল?

ভিয়েনা সম্মেলনের পর বেলজিয়ামকে হল্যান্ডের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছিল।

ভিয়েনা সম্মেলনের পর (১৮১৫ খ্রি.) নরওয়েকে কোন্ দেশের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছিল?

ভিয়েনা সম্মেলনের পর নরওয়েকে সুইডেনের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছিল।

মেটারনিখ কে ছিলেন? অথবা, মেটারনিখ কোন্ দেশের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন?

মেটারনিখ ছিলেন অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলার বা প্রধানমন্ত্রী।

কোন্ সময়কে মেটারনিখের যুগ বলা হয়?

১৮১৫-১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দকে মেটারনিখের যুগ বলা হয়।

কূটনীতির রাজকুমার কাকে বলা হত?

কূটনীতির রাজকুমার বলা হত প্রিন্স মেটারনিখকে।

কে নিজেকে নেপোলিয়ন বিজেতা বলে মনে করতেন?

মেটারনিখ নিজেকে নেপোলিয়ন বিজেতা বলে মনে করতেন।

কার্লসবাড ডিক্রি কে জারি করেন?

কার্লসবাড ডিক্রি জারি করেন প্রিন্স মেটারনিখ।

কার্লসবাড ডিক্রি কত খ্রিস্টাব্দে জারি করা হয়?

কার্লসবাড ডিক্রি ১৮১৯ খ্রিস্টাব্দে জারি করা হয়।

কার্লসবাড ডিক্রি কোথায় জারি করা হয়?

কার্লসবাড ডিক্রি জার্মানিতে জারি করা হয়।

ইউরোপীয় শক্তি সমবায় বা কনসার্ট অফ ইউরোপ কত খ্রিস্টাব্দে গঠিত হয়?

ইউরোপীয় শক্তি সমবায় বা কনসার্ট অফ ইউরোপ ১৮১৫ খ্রিস্টাব্দে গঠিত হয়।

পবিত্র চুক্তির উদ্ভাবক কে ছিলেন?

পবিত্র চুক্তির উদ্ভাবক ছিলেন রাশিয়ার জার প্রথম আলেকজান্ডার।

পবিত্র চুক্তি কত খ্রিস্টাব্দে ঘোষণা করা হয়?

পবিত্র চুক্তি ১৮১৫ খ্রিস্টাব্দে ঘোষণা করা হয়।

চতুঃশক্তি চুক্তির উদ্ভাবক কে ছিলেন?

চতুঃশক্তি চুক্তির উদ্ভাবক ছিলেন প্রিন্স মেটারনিখ।

চতুঃশক্তি চুক্তি কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

চতুঃশক্তি চুক্তি ১৮১৫ খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়।

চতুঃশক্তি চুক্তি বা শক্তি সমবায়ের প্রথম বৈঠক কত খ্রিস্টাব্দে হয়?

চতুঃশক্তি চুক্তি বা শক্তি সমবায়ের প্রথম বৈঠক ১৮১৮ খ্রিস্টাব্দে হয়।

চতুঃশক্তি চুক্তি বা শক্তি সমবায়ের প্রথম বৈঠক কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?

চতুঃশক্তি চুক্তি বা শক্তি সমবায়ের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় জার্মানির আই-লা-স্যাপেল শহরে।

শক্তি সমবায়ের ট্রপো বৈঠক কত খ্রিস্টাব্দে হয়েছিল?

শক্তি সমবায়ের ট্রপো বৈঠক ১৮২০ খ্রিস্টাব্দে হয়েছিল।

শক্তি সমবায়ের বা চতুঃশক্তি চুক্তির দ্বিতীয় বৈঠক কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?

শক্তি সমবায়ের বা চতুঃশক্তি চুক্তির দ্বিতীয় বৈঠক ট্রপো-তে অনুষ্ঠিত হয়।

ট্রপো প্রোটোকল বা ট্রপোর ঘোষণাপত্র কত খ্রিস্টাব্দে জারি করা হয়?

ট্রপো প্রোটোকল বা ট্রপোর ঘোষণাপত্র ১৮২০ খ্রিস্টাব্দে জারি করা হয়।

কাকে ইউরোপের প্রধানমন্ত্রী বলা হত?

প্রিন্স মেটারনিখকে ইউরোপের প্রধানমন্ত্রী বলা হত।

কাকে ইউরোপীয় রক্ষণশীলতার জনক বলা হয়?

প্রিন্স মেটারনিখকে ইউরোপীয় রক্ষণশীলতার জনক বলা হয়।

কত খ্রিস্টাব্দে মেটারনিখতন্ত্রের পতন ঘটে?

১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দে মেটারনিখতন্ত্রের পতন ঘটে।

ফ্রান্সে কত খ্রিস্টাব্দে জুলাই বিপ্লব হয়েছিল?

ফ্রান্সে ১৮৩০ খ্রিস্টাব্দে জুলাই বিপ্লব হয়েছিল।

ফরাসি সম্রাট অষ্টাদশ লুই-এর পর কে ফ্রান্সের সম্রাট হন?

ফরাসি সম্রাট অষ্টাদশ লুই-এর পর ফ্রান্সের সম্রাট হন দশম চার্লস।

দশম চার্লস কত খ্রিস্টাব্দে ফ্রান্সের সম্রাট হন?

দশম চার্লস ১৮২৪ খ্রিস্টাব্দে ফ্রান্সের সম্রাট হন।

পলিগন্যাক্ কে ছিলেন?

পলিগন্যাক্ ছিলেন সম্রাট দশম চার্লসের প্রধানমন্ত্রী।

জুলাই বিপ্লবের ফলে কোন্ সম্রাট সিংহাসনচ্যুত হন?

জুলাই বিপ্লবের ফলে সম্রাট দশম চার্লস সিংহাসনচ্যুত হন।

দশম চার্লস কে ছিলেন?

দশম চার্লস ছিলেন ফ্রান্সের বুরবোঁ বংশের সম্রাট।

জুলাই বিপ্লবের ফলে ফ্রান্সের নতুন সম্রাট কে হয়েছিলেন?

জুলাই বিপ্লবের ফলে ফ্রান্সের নতুন সম্রাট হয়েছিলেন লুই ফিলিপ।

কোন্ ভারতীয় মনীষী জুলাই বিপ্লবের সাফল্যে আনন্দিত হয়ে ফরাসিদের অভিনন্দন জানিয়েছিলেন?

রাজা রামমোহন রায় জুলাই বিপ্লবের সাফল্যে আনন্দিত হয়ে ফরাসিদের অভিনন্দন জানিয়েছিলেন।

কোন্ বিপ্লবের প্রভাবে চাটিস্ট আন্দোলন হয়েছিল?

জুলাই বিপ্লবের প্রভাবে চার্টিস্ট আন্দোলন হয়েছিল।

লুই ফিলিপ কোন্ বংশের লোক ছিলেন?

লুই ফিলিপ অলিয়েন্স বংশের লোক ছিলেন।

ফ্রান্সে কাকে নাগরিক রাজা বলা হয়?

ফ্রান্সে লুই ফিলিপকে নাগরিক রাজা বলা হয়।

ফ্রান্সে কত খ্রিস্টাব্দে ফেব্রুয়ারি বিপ্লব হয়?

ফ্রান্সে ১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দে ফেব্রুয়ারি বিপ্লব হয়।

ব্রেড অর লেড স্লোগানটি কোন্ বিপ্লবের সময়কার?

ব্রেড অর লেড স্লোগানটি ফেব্রুয়ারি বিপ্লবের সময়কার।

কত খ্রিস্টাব্দে জুলাই রাজতন্ত্রের অবসান ঘটে?

১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দে জুলাই রাজতন্ত্রের অবসান ঘটে।

কবে ফ্রান্সে দ্বিতীয় প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়?

১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দের ২৬ ফেব্রুয়ারি ফ্রান্সে দ্বিতীয় প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়।

কোন্ বছরকে ইউরোপের বিপ্লবের বছর বলা হয়?

১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দকে ইউরোপের বিপ্লবের বছর বলা হয়।

গিজো কে ছিলেন?

গিজো ছিলেন সম্রাট লুই ফিলিপের প্রধানমন্ত্রী।

ফ্রান্সে দ্বিতীয় প্রজাতন্ত্রের প্রথম রাষ্ট্রপতি কে ছিলেন?

ফ্রান্সে দ্বিতীয় প্রজাতন্ত্রের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন লুই নেপোলিয়ন।

কে ফ্রান্সে দ্বিতীয় প্রজাতন্ত্রের অবসান ঘটান?

লুই নেপোলিয়ন ফ্রান্সে দ্বিতীয় প্রজাতন্ত্রের অবসান ঘটান।

কে তৃতীয় নেপোলিয়ন উপাধি নিয়ে ফ্রান্সের সিংহাসন বসেছিলেন?

লুই নেপোলিয়ন তৃতীয় নেপোলিয়ন উপাধি নিয়ে ফ্রান্সের সিংহাসনে বসেছিলেন।

কে ফ্রান্সে দ্বিতীয় সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন?

তৃতীয় নেপোলিয়ন ফ্রান্সে দ্বিতীয় সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন।

কার্বোনারি কী?

কার্বোনারি হল ইটালির বিপ্লবী গুপ্ত সমিতি।

ইয়ং ইটালি বা নব্য ইটালি দল কে প্রতিষ্ঠা করেন?

ইয়ং ইটালি বা নব্য ইটালি দল জোসেফ ম্যাৎসিনি প্রতিষ্ঠা করেন।

রিসঅর্গিমেন্টো শব্দের অর্থ কী?

রিসঅর্গিমেন্টো শব্দের অর্থ নবজাগরণ বা পুনরুত্থান।

কাকে ইটালির ঐক্য আন্দোলনের মস্তিষ্ক বলা হত?

ক্যাভুরকে ইটালির ঐক্য আন্দোলনের মস্তিষ্ক বলা হত।

অ্যাসোসিয়েশন অ্যাগ্রারিয়া কে প্রতিষ্ঠা করেন?

অ্যাসোসিয়েশন অ্যাগ্রারিয়া ক্যাভুর প্রতিষ্ঠা করেন।

ক্যাভুর কোন্ রাজার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন?

ক্যাভুর রাজা ভিক্টর ইমান্যুয়েল-এর প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

ভিক্টর ইমান্যুয়েল কোন্ রাজ্যের রাজা ছিলেন?

ভিক্টর ইমান্যুয়েল পিডমন্ট-সার্ডিনিয়া রাজ্যের রাজা ছিলেন।

প্লোমবিয়ার্সের সন্ধি কাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়?

প্লোমবিয়ার্সের সন্ধি ক্যাভুর এবং ফরাসি সম্রাট তৃতীয় নেপোলিয়নের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়।

প্লোমবিয়ার্সের গোপন সন্ধি কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

প্লোমবিয়ার্সের গোপন সন্ধি ১৮৫৮ খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়।

ভিন্নাফ্রাঙ্কার সন্ধি কাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়?

ভিল্লাফ্রাঙ্কার সন্ধি অস্ট্রিয়া ও ফ্রান্সের তৃতীয় নেপোলিয়নের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়।

ভিন্নাফ্রাঙ্কার সন্ধি কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

ভিল্লাফ্রাঙ্কার সন্ধি ১৮৫৯ খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়।

দ্বিতীয় ফ্রান্সিস কোন্ রাজ্যের রাজা ছিলেন?

দ্বিতীয় ফ্রান্সিস নেপলস ও সিসিলি রাজ্যের রাজা ছিলেন।

জোসেফ গ্যারিবল্ডি কে ছিলেন?

জোসেফ গ্যারিবল্ডি ছিলেন ইটালির জাতীয়তাবাদী নেতা।

লালকোর্তা বাহিনী কে গঠন করেন?

লালকোর্তা বাহিনী গঠন করেন গ্যারিবল্ডি।

আধুনিক ইটালির স্রষ্টা কাকে বলা হয়?

ক্যাভুরকে আধুনিক ইটালির স্রষ্টা বলা হয়।

কত খ্রিস্টাব্দে ইটালি ঐক্যবদ্ধ স্বাধীন রাষ্ট্রে পরিণত হয়?

১৮৭০ খ্রিস্টাব্দে ইটালি ঐক্যবদ্ধ স্বাধীন রাষ্ট্রে পরিণত হয়।

নেপোলিয়ন জার্মানি জয়ের পর জার্মানিতে কটি রাজ্যের সৃষ্টি হয়?

নেপোলিয়ন জার্মানি জয়ের পর জার্মানিতে ৩৯টি রাজ্যের সৃষ্টি হয়।

কনফেডারেশন অফ দ্য রাইন কোথায় গড়ে ওঠে?

জার্মানিতে ৩৯টি রাজ্যকে নিয়ে কনফেডারেশন অফ দ্য রাইন গড়ে ওঠে।

জোলভেরেইন কী?

জোলভেরেইন হল জার্মানির শুল্কসংঘ।

জোলভেরেইন কত খ্রিস্টাব্দে গড়ে ওঠে?

জোলভেরেইন ১৮১৯ খ্রিস্টাব্দে গড়ে ওঠে।

কার উদ্যোগে জোলভেরেইন গড়ে ওঠে?

জার্মান অর্থনীতিবিদ মাজেন-এর উদ্যোগে জোলভেরেইন গড়ে ওঠে।

জার্মানির কোন্ রাজ্যের নেতৃত্বে জোলভেরেইন গড়ে ওঠে?

জার্মানির প্রাশিয়ার নেতৃত্বে জোলভেরেইন গড়ে ওঠে।

প্রাশিয়ার রাজা চতুর্থ ফ্রেডরিক উইলিয়মের মৃত্যুর পর কে প্রাশিয়ার রাজা হন?

প্রাশিয়ার রাজা চতুর্থ ফ্রেডরিক উইলিয়মের মৃত্যুর পর প্রাশিয়ার রাজা হন প্রথম উইলিয়ম।

প্রথম উইলিয়ম কত খ্রিস্টাব্দে প্রাশিয়ার সিংহাসনে বসেন?

প্রথম উইলিয়ম ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দে প্রাশিয়ার সিংহাসনে বসেন।

জাংকার কাদের বলা হত?

প্রাশিয়ার বড়ো ভূস্বামীদের বলা হত জাংকার।

অটো ভন বিসমার্ক কত খ্রিস্টাব্দে জার্মানির প্রধানমন্ত্রী হন?

অটো ভন বিসমার্ক ১৮৬২ খ্রিস্টাব্দে জার্মানির প্রধানমন্ত্রী হন।

কে বিসমার্ককে প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত করেন?

প্রাশিয়ার রাজা প্রথম উইলিয়ম বিসমার্ককে প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত করেন।

বিসমার্ক কত খ্রিস্টাব্দে ডেনমার্কের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন?

বিসমার্ক ১৮৬৪ খ্রিস্টাব্দে ডেনমার্কের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন।

ডেনমার্কের সঙ্গে প্রাশিয়ার যুদ্ধের সময় ডেনমার্কের রাজা কে ছিলেন?

ডেনমার্কের সঙ্গে প্রাশিয়ার যুদ্ধের সময় ডেনমার্কের রাজা ছিলেন নবম খ্রিস্টিয়ান।

গ্যাস্টিনের সন্ধি কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

গ্যাস্টিনের সন্ধি ১৮৬৫ খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়।

গ্যাস্টিনের সন্ধি কাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়?

গ্যাস্টিনের সন্ধি প্রাশিয়া ও অস্ট্রিয়ার মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়।

বিয়ারিটসের চুক্তি কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

বিয়ারিটৎসের চুক্তি ১৮৬৫ খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়।

বিয়ারিটসের চুক্তি কাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়?

বিয়ারিটৎসের চুক্তি প্রাশিয়া ও ফ্রান্সের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়।

স্যাডোয়ার যুদ্ধ কত খ্রিস্টাব্দে হয়?

স্যাডোয়ার যুদ্ধ হয় ১৮৬৬ খ্রিস্টাব্দে।

স্যাডোয়ার যুদ্ধ কাদের মধ্যে হয়?

স্যাডোয়ার যুদ্ধ প্রাশিয়া ও অস্ট্রিয়ার মধ্যে হয়।

স্যাডোয়ার যুদ্ধে কোন্ দেশ জয়লাভ করে?

স্যাডোয়ার যুদ্ধে প্রাশিয়া জয়লাভ করে।

কোন্ সন্ধির দ্বারা প্রাশিয়া ও অস্ট্রিয়ার মধ্যে যুদ্ধের অবসান ঘটে?

প্রাগের সন্ধির দ্বারা প্রাশিয়া ও অস্ট্রিয়ার মধ্যে যুদ্ধের অবসান ঘটে।

প্রাগের সন্ধি কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

প্রাগের সন্ধি ১৮৬৬ খ্রিস্টাব্দের ২৩ আগস্ট স্বাক্ষরিত হয়।

প্রাগের সন্ধি কাদের মধ্যে হয়?

প্রাগের সন্ধি প্রাশিয়া ও অস্ট্রিয়ার মধ্যে হয়।

এমস টেলিগ্রাম কী?

এমস শহর থেকে বিসমার্ককে পাঠানো প্রাশিয়ার রাজার টেলিগ্রামই এমস টেলিগ্রাম নামে পরিচিত।

এমস টেলিগ্রাম কবে পাঠানো হয়?

১৮৭০ খ্রিস্টাব্দের ১৩ জুলাই এমস টেলিগ্রাম পাঠানো হয়।

কাউন্ট বেনেদিতি কে ছিলেন?

কাউন্ট বেনেদিতি ছিলেন ফরাসি রাষ্ট্রদূত।

সেডানের যুদ্ধ কত খ্রিস্টাব্দে হয়?

সেডানের যুদ্ধ ১৮৭০ খ্রিস্টাব্দে হয়।

সেডানের যুদ্ধ কাদের মধ্যে হয়?

সেডানের যুদ্ধ হয় প্রাশিয়া ও ফ্রান্সের মধ্যে।

সেডানের যুদ্ধে কে জয়লাভ করে?

সেডানের যুদ্ধে প্রাশিয়া জয়লাভ করে।

কোন্ সন্ধির দ্বারা ফ্রান্স-প্রাশিয়া যুদ্ধের অবসান ঘটে?

ফ্রাঙ্কফোর্টের সন্ধির দ্বারা ফ্রান্স-প্রাশিয়া যুদ্ধের অবসান ঘটে।

ফ্রাঙ্কফোর্টের সন্ধি কবে স্বাক্ষরিত হয়?

ফ্রাঙ্কফোর্টের সন্ধি ১৮৭১ খ্রিস্টাব্দের ১০ মে স্বাক্ষরিত হয়।

ঐক্যবদ্ধ স্বাধীন জার্মানির প্রথম সম্রাট কে ছিলেন?

ঐক্যবদ্ধ স্বাধীন জার্মানির প্রথম সম্রাট ছিলেন কাইজার প্রথম উইলিয়ম।

কূটনীতির জাদুকর কাকে বলা হয়?

কূটনীতির জাদুকর বলা হয় বিসমার্ককে।

জার্মানি হল পরিতৃপ্ত দেশ –কার উক্তি?

জার্মানি হল পরিতৃপ্ত দেশ – এটি বিসমার্কের উক্তি।

কোন্ দেশকে ইউরোপের রুগ্‌ণ ব্যক্তি বলা হত?

তুরস্ককে ইউরোপের রুগ্ণ ব্যক্তি বলা হত।

তুর্কি ভাষায় বলকান শব্দের অর্থ কী?

তুর্কি ভাষায় বলকান শব্দের অর্থ হল পর্বত।

কোন্ অঞ্চলকে বলকান অঞ্চল বলা হয়?

ইজিয়ান সাগর ও দানিয়ুব নদীর মধ্যবর্তী অঞ্চলকে বলকান অঞ্চল বলা হয়।

বলকানের খ্রিস্টানদের ত্রাণকর্তা কাকে বলা হয়?

বলকানের খ্রিস্টানদের ত্রাণকর্তা বলা হয় রুশ জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডারকে।

কোন্ দেশ উম্ন জলনীতি গ্রহণ করেছিল?

রাশিয়া উয় জলনীতি গ্রহণ করেছিল।

উয় জলনীতি কী?

উয় জলনীতি হল বরফমুক্ত জলপথ অধিকার করার নীতি।

কত খ্রিস্টাব্দে ক্রিমিয়ার যুদ্ধ শুরু হয়?

১৮৫৪ খ্রিস্টাব্দে ক্রিমিয়ার যুদ্ধ শুরু হয়।

ক্রিমিয়ার যুদ্ধের কারণ কী ছিল?

ক্রিমিয়ার যুদ্ধের কারণ ছিল — গ্রোটোর গির্জার কর্তৃত্ব নিয়ে গ্রিক ও রোমান ধর্মযাজকদের বিরোধ।

কোন্ যুদ্ধকে সর্বাপেক্ষা অপ্রয়োজনীয় যুদ্ধ বলা হয়?

ক্রিমিয়ার যুদ্ধকে সর্বাপেক্ষা অপ্রয়োজনীয় যুদ্ধ বলা হয়।

জার কাদের বলা হয়?

জার বলা হয় রাশিয়ার শাসকদের।

ডেকাব্রিস্ট বা ডিসেমব্রিস্ট আন্দোলন কোন্ দেশে হয়েছিল?

ডেকাব্রিস্ট বা ডিসেমব্রিস্ট আন্দোলন রাশিয়ায় হয়েছিল।

কোন্ রুশ জারের আমলে রাশিয়ায় ডিসেমব্রিস্ট আন্দোলন হয়েছিল?

জার প্রথম নিকোলাসের আমলে (১৮২৫-৫৫ খ্রিস্টাব্দ) রাশিয়ায় ডিসেমব্রিস্ট আন্দোলন হয়েছিল।

মুক্তিদাতা জার কাকে বলা হয়?

জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডারকে মুক্তিদাতা জার বলা হয়।

জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডার কবে মুক্তির ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেন?

জার দ্বিতীয় আলেকজান্ডার ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দের ১৯ ফেব্রুয়ারি মুক্তির ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেন।

জার্মানির ভবিষ্যৎ সমুদ্রে – কার উক্তি?

জার্মানির ভবিষ্যৎ সমুদ্রে – এটি কাইজার দ্বিতীয় উইলিয়মের উক্তি।

হেটাইরিয়া ফিলিকে কী?

হেটাইরিয়া ফিলিকে হল গ্রিক বিপ্লবী গুপ্ত সমিতি।

হেটাইরিয়া ফিলিকে কথার অর্থ কী?

হেটাইরিয়া ফিলিকে কথার অর্থ হল স্বাধীনতার অনুরাগী।

কত খ্রিস্টাব্দে হেটাইরিয়া ফিলিকে প্রতিষ্ঠিত হয়?

১৮১৪ খ্রিস্টাব্দে হেটাইরিয়া ফিলিকে প্রতিষ্ঠিত হয়।

কে হেটাইরিয়া ফিলিকে প্রতিষ্ঠা করেন?

স্কুপাস নামে জনৈক গ্রিক বণিক হেটাইরিয়া ফিলিকে প্রতিষ্ঠা করেন।

প্রিন্স আলেকজান্ডার ইসিল্যান্টি কে ছিলেন?

প্রিন্স আলেকজান্ডার ইসিল্যান্টি ছিলেন মোলদাভিয়া প্রদেশের শাসক ও হেটাইরিয়া ফিলিকের সভাপতি।

ঊনবিংশ শতকের ইউরোপের রাজনীতিতে রাজতান্ত্রিক ও জাতীয়তাবাদী ভাবধারার সংঘাত একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই সংঘাতের ফলে ইউরোপে একাধিক জাতীয়তাবাদী আন্দোলন গড়ে ওঠে। এই আন্দোলনগুলির ফলে ইউরোপের রাজনৈতিক মানচিত্রে ব্যাপক পরিবর্তন আসে।

1/5 - (1 vote)


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন