ভারতের দ্বীপসমূহের সংক্ষিপ্ত পরিচয় – ভারতের দ্বীপ অঞ্চলের ভৌগোলিক গুরুত্ব

আজকের আলোচনার বিষয় হল ভারতের দ্বীপসমূহ। এই বিষয়টি দশম শ্রেণীর মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে, “ভারতের দ্বীপসমূহের সংক্ষিপ্ত পরিচয় দাও” প্রশ্নটি “ভারতের প্রাকৃতিক পরিবেশ” অধ্যায়ের “ভারতের ভূপ্রকৃতি” বিভাগে বারবার দেখা যায়।

এই নিবন্ধে, আমরা ভারতের দ্বীপসমূহ সম্পর্কে একটি সংক্ষিপ্ত ধারণা দেব যা আপনাকে পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত করতে সাহায্য করবে।

ভারতের দ্বীপসমূহের সংক্ষিপ্ত পরিচয় দাও

অবস্থান অনুসারে ভারতের দ্বীপগুলি দুটি ভাগে বিভক্ত — 1. বঙ্গোপসাগরের দ্বীপপুঞ্জ, 2. আরব সাগরের দ্বীপপুঞ্জ।

বঙ্গোপসাগরের দ্বীপপুঞ্জ – 

বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত দ্বীপগুলির মধ্যে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ প্রধান। এই দ্বীপগুলি প্রকৃতপক্ষে নিমজ্জমান পর্বতের উত্থিত অংশ। এজন্য দ্বীপের বিভিন্ন অংশে বিক্ষিপ্তভাবে ছোটো ছোটো পাহাড় দেখা যায়। এইসব পাহাড়ের উচ্চতা গড়ে 400 থেকে 500 মিটার। এগুলির মধ্যে দক্ষিণ আন্দামানের মাউন্ট হ্যারিয়েট একটি উল্লেখযোগ্য পাহাড়। এর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ হল স্যাডল পিক্‌ (732 মি)। ব্যারেন ও নারকোন্ডাম নামে এখানে দুটি সুপ্ত আগ্নেয়গিরি আছে। ব্যারেন আগ্নেয়গিরি থেকে 1991, 1995 এবং 2006 সালে অগ্ন্যুৎপাত হয়েছিল। ওডিশা উপকূলে আছে হুইলার ও স্টর্ক দ্বীপ। করমণ্ডল উপকূলসংলগ্ন অংশের দক্ষিণে রয়েছে শ্রীহরিকোটা দ্বীপ ও পাম্বান দ্বীপ।

আরব সাগরের দ্বীপপুঞ্জ – 

আরব সাগরে অবস্থিত দ্বীপগুলি হল আমিনদিভি, লাক্ষা ও মিনিকয় দ্বীপপুঞ্জ। এদের একসঙ্গে বলা হয় লাক্ষাদ্বীপ। এগুলি প্রবাল গঠিত দ্বীপ। সমুদ্রের বুকে অগণিত প্রবাল কীটের দেহ জমা হয়ে দ্বীপগুলির সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া উপকূল অংশে রয়েছে দিউ (কাথিয়াবাড় উপকূল), সিন্ধুদূর্গ (মহারাষ্ট্র), ভাইপিন, ওয়েলিংটন (কেরল) প্রভৃতি দ্বীপ।

ভারতের দ্বীপ অঞ্চলের ভৌগোলিক গুরুত্ব

ভারতের দ্বীপ অঞ্চলের ভৌগোলিক গুরুত্ব যথেষ্ট —

  • কাষ্ঠ শিল্পের বিকাশ – দ্বীপ অঞ্চলে ঘন বনভূমি থাকায় সেখানে কাঠ শিল্পের উন্নতি হয়েছে।
  • কুটির শিল্পের প্রসার – শঙ্খ শিল্প, দিয়াশলাই শিল্প, প্লাইউড কারখানা প্রভৃতি কুটির শিল্পের প্রসার দ্বীপগুলিতে হয়েছে।
  • মাছ শিকার – ভারতের দ্বীপ অঞ্চল মাছ ধরা ও সংগ্রহের আদর্শ জায়গা। তাই অধিবাসীদের প্রধান জীবিকা মাছ সংগ্রহ ও বিক্রি।
  • পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন – ভারতীয় দ্বীপভূমির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য দেশবিদেশের বহু পর্যটককে আকর্ষণ করে।

আজকের আলোচনায় আমরা ভারতের দ্বীপপুঞ্জ সম্পর্কে জানতে পেরেছি। এই দ্বীপগুলো কেবল প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্যই বিখ্যাত নয়, বরং ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক দিক থেকেও সমৃদ্ধ।

দশম শ্রেণীর মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষার জন্য এই বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ‘ভারতের প্রাকৃতিক পরিবেশ’ অধ্যায়ের ‘ভারতের ভূপ্রকৃতি’ বিভাগে এই প্রশ্নটি বারবার দেখা যায়।

4/5 - (1 vote)


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন