মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান – জীবনের প্রবহমানতা – সম্পূরক উদ্ভিদের যৌন জনন – অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর

জীবনের প্রবাহমানতা হল জীবনের একটি মৌলিক বৈশিষ্ট্য। এই অধ্যায়ে, আমরা জীবনের প্রবাহমানতার বিভিন্ন দিক সম্পর্কে জানব। আমরা জানব যে জীবন কীভাবে প্রজননের মাধ্যমে একটি প্রজন্ম থেকে অন্য প্রজন্মে চলে যায়। আমরা জানব যে জীবন কীভাবে পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নেয়। আমরা জানব যে জীবন কীভাবে বিবর্তনের মাধ্যমে পরিবর্তিত হয়।

Table of Contents

মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান – জীবনের প্রবহমানতা – সম্পূরক উদ্ভিদের যৌন জনন

যৌন জনন পদ্ধতির একক কী?

যৌন জনন প্রক্রিয়ার একক হল গ্যামেট বা জননকোশ।

পুংগ্যামেট ও স্ত্রীগ্যামেটের মিলনের ফলে কী উৎপন্ন হয়?

পুংগ্যামেট ও স্ত্রীগ্যামেটের মিলনের ফলে জাইগোট বা ভ্রূণাণু উৎপন্ন হয়।

গ্যামেটের ক্রোমোজোম সংখ্যা কত?

গ্যামেটের ক্রোমোজোম সংখ্যা n|

যৌন জনন আর কী কী নামে পরিচিত?

যৌন জনন আর যেসব নামে পরিচিত তা হল – অ্যাম্ফিমিক্সিস, সিনজেনেসিস প্রভৃতি।

গ্যামেট গঠনের প্রক্রিয়াকে কী বলে?

গ্যামেট গঠনের প্রক্রিয়াকে গ্যামেটোজেনেসিস বলে।

জাইগোট মাইটোসিস প্রক্রিয়ায় বিভাজিত হয়ে কী উৎপন্ন করে?

জাইগোট মাইটোসিস প্রক্রিয়ায় বিভাজিত হয়ে ভ্রূণ বা এমব্রায়ো উৎপন্ন করে।

সপুষ্পক উদ্ভিদের সর্বাপেক্ষা দৃষ্টি আকর্ষক অঙ্গ কী?

সপুষ্পক উদ্ভিদের সর্বাপেক্ষা দৃষ্টি আকর্ষক অঙ্গ হল ফুল বা পুষ্প।

পুষ্পের নির্দিষ্ট বিন্যাসরীতিকে কী বলে?

পুষ্পের নির্দিষ্ট বিন্যাসরীতিকে পুষ্পবিন্যাস বলে।

ফুলে বৃত্ত থাকলে তাকে কী বলে?

ফুলে বৃত্ত থাকলে তাকে সবৃন্তক ফুল বলে।

ফুলে বৃত্ত না থাকলে তাকে কী বলে?

ফুলে বৃত্ত না থাকলে তাকে অবৃন্তক ফুল বলে।

একটি সবৃন্তক ফুলের নাম লেখো।

একটি সবৃন্তক ফুলের নাম হল জবা।

একটি অবৃন্তক ফুলের নাম লেখো।

একটি অবৃন্তক ফুলের নাম হল রজনিগন্ধা।

কোন ধরনের উদ্ভিদে ফুল ফোটে?

সপুষ্পক উদ্ভিদে ফুল ফোটে।

ফুলের প্রধান কাজ কী?

ফুলের প্রধান কাজ হল বংশবিস্তার।

একটি ক্লীব পুষ্পের উদাহরণ দাও।

কচু ফুল হল একটি ক্লীবপুষ্প।

অনেকগুলি ফুল একটি অক্ষে একসাথে গুচ্ছিত হয়ে থাকলে তাকে কী বলে?

অনেকগুলি ফুল একটি অক্ষে একসাথে গুচ্ছিত হয়ে থাকলে, তাকে পুষ্পমঞ্জরি বলে।

ফুলের কোন্ স্তবকটি না থাকলে পতঙ্গ সাধারণত আকৃষ্ট হয় না?

পাপড়ি বা দলমণ্ডল না থাকলে পতঙ্গ সাধারণত আকৃষ্ট হয় না।

বিটপের কোন্ অংশ থেকে ফুল উৎপন্ন হয়?

বিটপের অন্তর্গত পুষ্পমুকুল থেকে ফুল উৎপন্ন হয়।

ফুলের গোড়ার দিকে সরু দণ্ডের মতো যে অংশটি ফুলকে ধরে রাখে তাকে কী বলে?

ফুলের গোড়ার দিকে সরু দণ্ডের মতো যে অংশটি ফুলকে ধরে রাখে তাকে পুষ্পবৃন্ত বলে।

বৃত্তির প্রত্যেকটি অংশকে কী বলে?

বৃত্তির প্রত্যেকটি অংশকে বৃত্যংশ বা সেপাল বলে।

পুংস্তবকের প্রত্যেকটি অংশকে কী বলে?

পুংস্তবকের প্রত্যেকটি অংশকে পুংকেশর বা স্ট্যামেন বলে।

দলমণ্ডলের প্রত্যেকটি অংশকে কী বলে?

দলমণ্ডলের প্রত্যেকটি অংশকে দলাংশ বা পাপড়ি বা পেটাল বলে।

ডিম্বাশয়ের সঙ্গে যুক্ত যে সরু দণ্ডটি গর্ভমুণ্ডকে ধারণ করে তাকে কী বলে?

ডিম্বাশয়ের সঙ্গে যুক্ত যে সরু দণ্ডটি গর্ভমুণ্ডকে ধারণ করে, তাকে গর্ভদণ্ড বা স্টাইল বলে।

ফুলের পুং জননকোশ কী থেকে উৎপন্ন হয়?

ফুলের পুংজননকোশ পরাগরেণু থেকে উৎপন্ন হয়।

একটি স্থায়ী বৃত্তির উদাহরণ দাও।

একটি স্থায়ী বৃত্তির উদাহরণ হল আলু।

স্ত্রীস্তবকের প্রত্যেকটি অংশকে কী বলে?

স্ত্রীস্তবকের প্রত্যেকটি অংশকে গর্ভপত্র বা কারপেল বলে।

পৃথকভাবে স্ত্রী ও পুরুষ ফুল একই গাছে ফুটলে সেই ধরনের উদ্ভিদকে কী বলে?

পৃথকভাবে স্ত্রী ও পুরুষ ফুল একই গাছে ফুটলে সেই ধরনের উদ্ভিদকে সহবাসী উদ্ভিদ বলে।

দুটি সহবাসী উদ্ভিদের নাম লেখো।

দুটি সহবাসী উদ্ভিদের নাম কুমড়ো, লাউ।

পুরুষ ও স্ত্রীফুল দুটি ভিন্ন গাছে ফুটলে সেই ধরনের উদ্ভিদকে কী বলে?

পুরুষ ও স্ত্রীফুল দুটি ভিন্ন গাছে ফুটলে সেই ধরনের উদ্ভিদকে ভিন্নবাসী উদ্ভিদ বলে।

দুটি ভিন্নবাসী উদ্ভিদের উদাহরণ দাও।

দুটি ভিন্নবাসী উদ্ভিদের উদাহরণ হল — পেঁপে, তাল।

ফুলের প্রতিটি গর্ভপত্রের কয়টি অংশ থাকে?

ফুলের প্রতিটি গর্ভপত্রে তিনটি অংশ থাকে, যথা — গর্ভমুণ্ড, গর্ভদণ্ড ও ডিম্বাশয়।

কোন্ প্রকার ফুলকে বহুপ্রতিসম ফুল বলা হয়?

সমাঙ্গ ফুলকে বহুপ্রতিসম ফুল বলা হয়।

ফুলের কোন্ দুটি অংশ রূপান্তরিত হয়ে যথাক্রমে ফল ও বীজ সৃষ্টি হয়?

ফুলের ডিম্বাশয় ও ডিম্বক অংশ দুটি রূপান্তরিত হয়ে যথাক্রমে ফল ও বীজ সৃষ্টি হয়।

বৃত্তের শীর্ষে পুষ্পস্তবকগুলি যে অংশে সাজানো থাকে তাকে কী বলে?

বৃত্তের শীর্ষে পুষ্পস্তবকগুলি যে অংশে সাজানো থাকে তাকে পুষ্পাক্ষ বলে।

প্রতিটি ফুলে কতগুলি পুষ্পাক্ষ থাকে?

প্রতিটি ফুলে একটি পুষ্পাক্ষ থাকে।

পুং জননকোশ এবং স্ত্রী জননকোশের মিলনকে কী বলে?

পুং জননকোশ ও স্ত্রী-জননকোশের মিলনকে নিষেক বলে।

সম্পূর্ণ ফুলে কতগুলি স্তবক থাকে?

সম্পূর্ণ ফুলে চারটি স্তবক থাকে।

রেণু মাতৃকোশ কোন্ প্রক্রিয়ায় পরাগরেণু বিভাজিত হয়ে গঠন করে?

রেণু মাতৃকোশ মিয়োসিস প্রক্রিয়ায় বিভাজিত হয়ে পরাগরেণু গঠন করে।

কোন্ বিজ্ঞানী সর্বপ্রথম খেজুর গাছের পরাগযোগের প্রসঙ্গটি উল্লেখ করেছিলেন?

বিজ্ঞানী থিয়োফ্রাসটাস সর্বপ্রথম খেজুর গাছের পরাগযোগের প্রসঙ্গটি উল্লেখ করেছিলেন।

কোন্ বিজ্ঞানী সর্বপ্রথম দ্বিনিষেক শব্দটি ব্যবহার করেন?

বিজ্ঞানী নাওয়াসিন (1898) সর্বপ্রথম দ্বিনিষেক শব্দটি ব্যবহার করেন।

ফুলের জননকোশ সমন্বিত প্রজননিক অংশের নাম কী?

ফুলের জননকোশ সমন্বিত প্রজননিক অংশের নাম পুংকেশর এবং গর্ভপত্র।

গর্ভপত্রের মধ্যে ডিম্বকের অবস্থান কোথায়?

গর্ভপত্রের মধ্যে ডিম্বকের অবস্থান ডিম্বাশয়ে।

নির্ণীত নিউক্লিয়াসের ক্রোমোজোম সংখ্যা কত?

নির্ণীত নিউক্লিয়াসের ক্রোমোজোম সংখ্যা 2n|

সস্য নিউক্লিয়াসের ক্রোমোজোম সংখ্যা কত?

সস্য নিউক্লিয়াসের ক্রোমোজোম সংখ্যা 3n।

একটি বায়ুপরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম ও বিজ্ঞানসম্মত নাম লেখো।

একটি বায়ুপরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম হল ধান এবং বিজ্ঞানসম্মত নাম হল ওরাইজা স্যাটাইভা (Oryza sativa)।

একটি জলপরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম ও বিজ্ঞানসম্মত নাম লেখো।

একটি জলপরাণী উদ্ভিদের সাধারণ নাম হল পাতাঝাঁঝি এবং বিজ্ঞানসম্মত নাম হল হাইড্রিলা ভার্টিসিলাটা (Hydrilla verticillata)|

একটি পতঙ্গ পরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম ও বিজ্ঞানসম্মত নাম লেখো।

একটি পতঙ্গ পরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম হল আম এবং বিজ্ঞানসম্মত নাম হল-ম্যাগ্নিফেরা ইন্ডিকা (Mangifera indica)।

একটি পক্ষীপরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম বিজ্ঞানসম্মত নাম লেখো।

একটি পক্ষীপরাগী উদ্ভিদের সাধারণ নাম হল শিমুল এবং বিজ্ঞানসম্মত নাম হল বমব্যাক্স সিবা (Bombax cleba)।

নিষেকের পরে সস্য নিউক্লিয়াস বিভাজিত হয়ে কীসেপরিণত হয়?

নিষেকের পরে সস্য নিউক্লিয়াস বিভাজিত হয়ে সস্যে পরিণত হয়।

পরাগধানীতে অবস্থিত পরাগরেণুর হ্যাপ্লয়েড নিউক্লিয়াসটি বিভাজিত হয়ে কী কী উৎপন্ন করে?

পরাগধানীতে অবস্থিত পরাগরেণুর হ্যাপ্লয়েড নিউক্লিয়াসটি বিভাজিত হয়ে একটি জননকোশাধার নিউক্লিয়াস ও একটি নালিকা নিউক্লিয়াস উৎপন্ন করে।

পাতাঝাঝি নামক জলজ উদ্ভিদের পুংপুষ্পে কতগুলি পুংকেশর থাকে?

পাতাঝাঁঝি নামক জলজ উদ্ভিদের পুংপুষ্পে 30-40টি পুংকেশর থাকে।

রাতে ফোটে এমন দুটি ফুলের নাম লেখো যাদের উজ্জ্বল বর্ণ নেই।

রাতে ফোটে এমন দুটি ফুলের নাম হল — রজনিগন্ধা, হাসনুহানা।

পুংদণ্ড ও পরাগধানী নিয়ে গঠিত পুংস্তবকের প্রতিটি অংশকে কী বলে?

পুংদণ্ড ও পরাগধানী নিয়ে গঠিত পুংস্তবকের প্রতিটি অংশকে পুংকেশর বলে।

পুংলিঙ্গধরের প্রথম কোশের নাম কী?

পুংলিঙ্গধরের প্রথম কোশের নাম পরাগরেণু।

পরাগরেণুর বাইরের আবরণকে কী বলে?

পরাগরেণুর বাইরের আবরণকে রেণুবহিস্ত্বক বলে।

নিষেকের ফলে ডিম্বকনাভি কীসে পরিবর্তিত হয়?

নিষেকের ফলে ডিম্বকনাভি বীজবৃত্তে পরিবর্তিত হয়।

নিষেকের ফলে ডিম্বকত্বক কীসে পরিবর্তিত হয়?

নিষেকের ফলে ডিম্বকত্বক বীজত্বকে পরিবর্তিত হয়।

সম্পূরক উদ্ভিদের যৌন জনন একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া যা উদ্ভিদের বংশবৃদ্ধি ও বিবর্তনে সাহায্য করে। এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নতুন উদ্ভিদ সৃষ্টি হয় এবং উদ্ভিদের বৈচিত্র্য বৃদ্ধি পায়।

Rate this post


Join WhatsApp Channel For Free Study Meterial Join Now
Join Telegram Channel Free Study Meterial Join Now

মন্তব্য করুন